Home / খেলাধুলা / এমসিসির সভাপতি হলেন সাঙ্গাকারা

এমসিসির সভাপতি হলেন সাঙ্গাকারা

শত বছরের পুরোনো এমসিসির ইতিহাসে ব্যতিক্রমধর্মী ঘটনা ঘটেছে। এত দিন ধরে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ আইন প্রণয়নকারী এই সংস্থার সভাপতি হিসেবে ইংলিশরাই দায়িত্ব নিতেন। সুপ্রাচীন এই রীতির পরিবর্তন ঘটতে যাচ্ছে সামনের অক্টোবর থেকে। ঐতিহ্যবাহী মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাবের (এমসিসি) সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন শ্রীলঙ্কার সাবেক অধিনায়ক কুমার সাঙ্গাকারা। বুধবার এক বিবৃতিতে এটি জানিয়েছে এমসিসি কর্তৃপক্ষ।

বুধবার লন্ডনে লর্ডসে এমসিসির বার্ষিক সাধারণ সভায় বর্তমান সভাপতি অ্যান্থনি রেফোর্ড উত্তরসূরি হিসেবে সাঙ্গাকারার নাম ঘোষণা করেন। রেফোর্ড বলেছেন, ‘এমসিসি তার পরিধি এবং আন্তর্জাতিক খ্যাতি বাড়াতে চাচ্ছে। সে লক্ষ্যেই কুমার সাঙ্গাকারা এ পদে বসছেন। আমি আনন্দিত কুমার এই আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন। মাঠ ও মাঠের বাইরে কুমার একজন অসাধারণ ব্যক্তি। আশা করছি ক্লাবের হয়েও তিনি উল্লেখযোগ্য অবদান রাখবেন। সভাপতি হয়ে বিশ্বকাপ এবং অ্যাশেজ বিষয়ক সিদ্ধান্ত গ্রহণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন।’

শ্রীলঙ্কার সাবেক উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান সাঙ্গাকারা দুবার লর্ডসের অনার্স বোর্ডে নাম লিখেছেন। সাঙ্গাকারা এমসিসির সঙ্গে অনেক দিন ধরে জড়িত। এই ক্লাবে ২০১১ সালে ‘স্পিরিট ক্রিকেট অব কাউড্রে’ বক্তৃতা দিয়েছেন। ২০১২ সালে তিনি ক্লাবটির আজীবন সদস্যপদ লাভ করেন। একই বছরে তিনি এমসিসি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কমিটিতে যোগ দেন এবং সক্রিয় সদস্য হিসেবে কাজ করা শুরু করেন। ২০০৫ সালে সুনামির জন্য রিলিফ সংগ্রহের ম্যাচে লর্ডসে আন্তর্জাতিক একাদশের বিপক্ষে তিনি এমসিসির হয়ে খেলেছিলেন।

শ্রীলঙ্কার হয়ে ১৩৪টি টেস্ট, ৪০৪টি ওয়ানডে এবং ৫৬টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন সাঙ্গাকারা। টেস্ট ইতিহাসের ষষ্ঠ সর্বোচ্চ রানের মালিক সাঙ্গাকারার মোট টেস্ট রান ১২,৪০০। অন্যদিকে, ১৪,২৩৪ রান করে ওয়ানডের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকদের তালিকার দুইয়ে আছেন তিনি। তার ওপরে আছেন শুধুমাত্র ভারতীয় কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকার।

সাঙ্গাকারার সভাপতি থাকাকালীন লর্ডসে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও পাকিস্তানের বিরুদ্ধে দু’টি টেস্ট ম্যাচ খেলবে ইংল্যান্ড। এ ছাড়া সাঙ্গাকারা থাকতে থাকতেই এমসিসিতে ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড আয়োজন করতে যাচ্ছে ১০০ বলের ক্রিকেট খেলা। এক বিবৃতিতে ৪১ বছর বয়সী সাঙ্গাকারা জানিয়েছেন, ‘এমসিসির পরবর্তী সভাপতি হতে পেরে গর্বিত বোধ করছি। আমার কাছে এমসিসি বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রিকেট ক্লাব। ক্রিকেটের প্রসারে মাঠের ভেতরে ও বাইরে এই ক্লাবের উদ্যোগ প্রশংসনীয়।’

Check Also

তীব্র গরম থেকে ‘টেনশনে’র শীতে মাশরাফিরা

মাশরাফিরা রওনা দেওয়ার আগে অনুশীলন করেছেন তীব্র দাবদাহে। আয়ারল্যান্ডে পৌঁছাতেই টের পেলেন শীতের তীব্রতা। বাংলাদেশের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *